এই বছরের প্রধান খেলাধুলার ঘটনা – সাতাশতম বিশ্ব গ্রীষ্ম ইউনিভার্সিয়াড তাতারস্থানের রাজধানী কাজানে উদ্বোধন হতে চলেছে. ছাত্র ক্রীড়া উত্সবের ইতিহাসে এবারে প্রথম খেলাধুলার প্রতিযোগিতার সঙ্গে শুরু হচ্ছে খুবই প্রসারিত সাংস্কৃতিক ইউনিভার্সিয়াড. তার অংশগ্রহণকারী হবেন পাঁচশো রুশ ও বিদেশী সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী ও সঙ্গীত শিল্পীরা.

সাংস্কৃতিক ইউনিভার্সিয়াডের প্রথম ঘটনা -সঙ্গীত স্রষ্টা রাখমানিনভের নামাঙ্কিত আন্তর্জাতিক উত্সব. মহান রুশ সঙ্গীত স্রষ্টার সুর বিশ্ব প্রতিযোগিতার উদ্বোধনের দিনে ধ্বনিত হবে রক মিউজিশিয়ানের মতো প্রখ্যাত পিয়ানো বাদক দেনিস মাত্সুয়েভের বাদনে. তাঁর সঙ্গে তাতারস্থানের রাষ্ট্রীয় সিম্ফনিক অর্কেস্ট্রা সঙ্গত করবে. এই দিনেই - সন্ধ্যায় – অর্কেস্ট্রা ইউনিভার্সিয়াডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মুখ্য সঙ্গীত সহযোগিতার কাজ করবে.

তাতারস্থানের অপেরা ও ব্যালে থিয়েটার ইউনিভার্সিয়াডের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য ১১টি অনুষ্ঠান পেশ করবে, যাতে অংশ নেবেন ভালেরি গিয়ের্গিয়েভ ও মিখাইল প্লেতনেভ. “এটা এক সম্পূর্ণ রকমের অপেরা ও ব্যালের উত্সব”, - এই কথা উল্লেখ করে থিয়েটারের পরিচালক ও প্রযোজক এডওয়ার্ড ত্রেসকিন বলেছেন:

“খেলা ও সংস্কৃতির মেল বন্ধন – এটা অবশ্যই মানুষকে অভিভূত না করে পারে না. এই উত্সব সেই রকমেরই, যেমন খেলোয়াড়দের জন্য প্রতিযোগিতা, তাদের শিল্প নির্মাণের ক্ষমতার একটা হীরক খণ্ডের মতো”.

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মঞ্চ শুধু এই শহরের অকাদেমির প্রেক্ষা গৃহগুলিই হবে না. কাজানে বিশেষ করে তৈরী করা সাংস্কৃতিক ইউনিভার্সিয়াডের উদ্যানের উদ্বোধন হয়েছে – তাতে একসাথে তিরিশ হাজার দর্শক অনুষ্ঠান দেখতে পারেন. এই উদ্যান উপস্থাপনা করে শহরের মেয়র ইলসুর মেতশিন বলেছেন:

“সাংস্কৃতিক ইউনিভার্সিয়াড হওয়া উচিত্ সবচেয়ে উচ্চ মানের! আমরা নিজেদের জন্য কাজ শুধু উদ্বোধনী উত্সবের দিনেই রাখি নি, বরং খেলাধুলার দিনগুলিতে এই উদ্যানে দেখানো হতে চলেছে রাশিয়ার সমস্ত আত্মিক সম্পদের উদাহরণ, তার বহু প্রজাতির সংস্কৃতি ও আধুনিক রাশিয়াও”.

পার্কে লোক সংস্কৃতির গোষ্ঠীরা অনুষ্ঠান করবেন, জাতীয় রন্ধন উত্সবও হবে. আর বিশেষ উপহার হবে প্রত্যেক সন্ধ্যায় বিখ্যাত সার্কাস “দ্যু সোলেই” দলের অনুষ্ঠান, যেটি বিশেষ করে খেলাধুলার বিষয় নিয়েই এবারে তৈরী করা হয়েছে. এখন অবধি এই বিশ্ব বিখ্যাত দল এই ধরনের রাস্তার উপরে শো করেছেন শুধুমাত্র নিজেদের দেশে – কানাডার কুইবেক শহরে. সাংস্কৃতিক ইউনিভার্সিয়াডের এক বিরল প্রকল্প হিসাবে এই উদ্যান সম্বন্ধে মন্তব্য করে উদ্যানের কার্যকরী ডিরেক্টর ইগর সিভভ বিশেষ করে উল্লেখ করে বলেছেন:

“এটা তো কম বলা হল: এই উদ্যানে এবারই প্রথম আগামী ইউনিভার্সিয়াডগুলি নিয়ে উপস্থাপনা করা হতে চলেছে. আমাদের এখানে থাকবে ইতালি, কোরিয়া আর রাশিয়া”.

ইতালির শহর ত্রেন্তিনো, দক্ষিণ কোরিয়ার শহর কোয়ানঝু, আরও সাইবেরিয়ার শহর ক্রাসনোইয়ারস্ক এই উদ্যানে ফেলা তাঁবুর মধ্যে নিজেদের ছোট প্রতিনিধি দপ্তর খুলেছে. কারণ ডিসেম্বর মাসে এই বছরেই ইতালির ত্রেন্তিনো শহর ২০১৩ সালের শীত ইউনিভার্সিয়াডের রাজধানী হবে, কোয়ানঝু শহরে হবে ২০১৫ সালের গ্রীষ্ম কালের খেলাধুলা. আর ক্রাসনোইয়ারস্ক শহর দাবী করেছে “সারা বিশ্বের ছাত্র সমাজকে” তারা অতিথি হিসাবে পেতে চায় ২০১৯ সালের শীত ইউনিভার্সিয়াডে. আর সকলের জন্যই সব কিছু আগ্রহের: যেমন খেলাধুলা, তেমনই সংস্কৃতি.