বোলিভিয়ার সরকার বুধবার সন্ধ্যায় সি.আই.এ-র প্রাক্তন কর্মী এডওয়ার্ড স্নোডেন-কে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সমর্পণের সম্ভাবনা সম্বন্ধে ওয়াশিংটনের অনুরোধ বিবেচনা করতে অস্বীকার করেছে, জানিয়েছে দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়. সমর্পণ করার অনুরোধ লা-পাসে পাঠানো হয়েছিল সেই দিন, যেদিন রাষ্ট্রপতি এভো মোরালেসের বিমানকে একসারি ইউরোপীয় দেশের উপর দিয়ে যাত্রায় নিষেধ করা হয়েছিল এবং তিনি ভিয়েনায় নামতে বাধ্য হয়েছিলেন. বোলিভিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘোষণা করে যে, “গভীর হতাশা প্রকাশ করছে এবং মার্কিনী নাগরিক এডওয়ার্ড স্নোডেন-কে সমর্পণ করার উদ্দেশ্যে তাকে প্রাথমিকভাবে আটক করার জন্য অনুরোধ বিবেচনা করতে অস্বীকার করছে”. রাষ্ট্রপতি মোরালেস-কে বেআইনীভাবে আটকে রাখা হয়েছিল এ সন্দেহে যে, রাষ্ট্রপতির বিমানে স্নোডেন থাকতে পারে, উল্লেখ করেছে কূটনৈতিক বিভাগ. বোলিভিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরও ঘোষণা করেছে যে, বোলিভিয়ার নেতার সাম্প্রতিক রাশিয়া সফরের সময় স্নোডেন মোরালেসের সাথে সাক্ষাত্ করে নি এবং রাষ্ট্রপতির বিমানেও ওঠে নি. পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্নোডেনের বোলিভিয়ার ভূভাগে থাকার খবরও অস্বীকার করেছে.