মিশরের রাষ্ট্রপতির জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সহকারী এস্সাম আল-হাদ্দাদ বুধবার দেশে যা ঘটছে তাকে সামরিক কুদেতা বলে অভিহিত করেছেন. ফেসবুক সামাজিক নেটওয়ার্কে আল-হাদ্দাদ লিখেছেন, “মিশরের নামে এবং ঐতিহাসিক সঠিকতার জন্য আসুন এখানে যা ঘটছে তার সঠিক নাম দেওয়া যাক: এটা সামরিক কুদেতা”. আন্তর্জাতিক ব্যাপার সংক্রান্ত উপদেষ্টার মতে, এখানে “বিপুল রক্তক্ষয় এড়ানো” যাবে না. তিনি আরও এ স্থিরবিশ্বাস প্রকাশ করেন যে, সেনাবাহিনী ও পুলিশ হিংসার পথ গ্রহণ করবে রাস্তা থেকে রাষ্ট্রপতির পক্ষসমর্থকদের সরানোর জন্য. আগে এ অসমর্থিত তথ্য দেখা দিয়েছিল যে, মুহাম্মেদ মুর্সি-কে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে. তাছাড়া, আল-মাস্রি আল-ইয়াউম পোর্টালের তথ্য অনুযায়ী,ভাই মুসলমান সম্প্রদায়ের ধর্মীয় গুরু মুহম্মেদ বাদিয়া এবং তাঁর সহকারী খাইরাত আশ-শাতেরকে দেশ ছেড়ে যেতে নিষেধ করা হয়েছে. অনুরূপ নিষেধাজ্ঞা প্রবর্তিত হয়েছে ইস্লামিক শক্তির আরও ২৭০ জন নেতা সম্পর্কে. প্রসঙ্গত, মুর্সির প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে “বি.বি.সি” রাষ্ট্রপতির গ্রেপ্তার হওয়ার খবর অস্বীকার করেছে.