দেশের জনগনের উদ্দেশ্য করা এক রেডিও ভাষণে ইজিপ্টের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আবদেল ফাত্তাহা আস-সিসি বলেছেন যে, “জনগনের দাবী মেনে ইজিপ্টের ভবিষ্যত গণতান্ত্রিক উন্নতির পথনির্দেশ করার জন্য এটাই শেষ সুযোগ. যদি জনতার দাবী পূরণ এই সময়ের মধ্যে না করা হয়, তবে সামরিক শক্তির উপরেই দায়িত্ব পড়বে, জাতীয় ও ঐতিহাসিক দায়িত্বের কথা ভেবে ও ইজিপ্টের জনগনের দাবীকে সম্মান করে পরবর্তী পথনির্দেশ করার. সামরিক বাহিনী এই দায়িত্ব নেবে সমস্ত রাজনৈতিক দল, গোষ্ঠী ও যুব সমাজের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে, যারা ছিল ও রয়েছে বিপ্লবের ইঞ্জিন হিসাবে. যদি এই সময় নষ্ট হয়, তবে আরও বেশী করেই রাজনীতিবিদদের মধ্যে বিরোধ হবে”.

ইজিপ্টে রাষ্ট্রপতি মুর্সির বিরুদ্ধে গণ সংগ্রাম চলছে, সোমবারে কায়রো শহরে মুসলমান ভাইদের সদর দপ্তরে বিরোধীরা ঢুকে পড়তে পেরেছে. দেশের বহু শহরে সংঘর্ষ চলছে, যার ফলে ১৬ জন নিহত হয়েছে, বহু শত লোক আহত. মঙ্গলবার সন্ধ্যার মধ্যে রাষ্ট্রপতির পদত্যাগ করার দাবীর পরিপ্রেক্ষিতে সোমবারে ইজিপ্টে পাঁচজন মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন.