সি.আই.এ-র প্রাক্তন কর্মী এডওয়ার্ড স্নোডেনের ভাগ্য ক্রেমলিনের আলোচ্য সূচির বিষয় নয়, “এখো মস্কভি” বেতার কেন্দ্রকে বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির প্রেস-সেক্রেটারি দমিত্রি পেস্কোভ.তিনি মনে করিয়ে দেন যে, ফিনল্যান্ডে নিজের উক্তিতে পুতিন ঘটনাবলির নিজস্ব মূল্যায়ন দিয়েছেন. এবং স্পষ্টভাবে বলেছেন যে, আইনগত ভাবে স্নোডেন রুশ ফেডারেশনে ঢোকেন নি, তিনি সীমানা পার হন নি. আগে ইকোয়েডরের রাষ্ট্রপতি রাফায়েল কোরেয়া বলেন যে, রাশিয়ার কর্তৃপক্ষের নির্ধারণ করা উচিত এডওয়ার্ড স্নোডেন-কে নিয়ে কি করবে. স্থানীয় টেলি-চ্যানেলে প্রদত্ত বক্তৃতায় তিনি বলেন, “বর্তমানে স্নোডেনের থাকার জায়গা সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত রয়েছে রাশিয়ার কর্তৃপক্ষের হাতে”. কোরেয়া যোগ করে বলেন, “আশ্রয়ের জন্য আবেদন করার প্রক্রিয়ায় অনুমিত ইকোয়েডরের ভূভাগে থাকা”. ইকোয়েডরের নেতা যোগ করে বলেন যে, “এ ব্যাপারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতামত বিবেচনায় রাখবে”, তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ইকোয়েডর স্বতন্ত্রভাবে গ্রহণ করবে. স্নোডেন হঙকঙ থেকে মস্কোয় আসেন, এবং প্রচার মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত “শেরেমেতিয়েভো” আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ট্রানজিট জোনে রয়েছে.