জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্য মিছিলের উপরে ভারতীয় সেনারা গুলি চালাতে বাধ্য হয়েছে. এই ঘটনার ফলে এক মিছিলের লোক মারা গিয়েছে.এর আগে সামরিক অপারেশন চলার সময়ে এক কিশোরের মৃত্যুকে ঘিরে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পরে এই ঘটনা ঘটেছে. এই বিষয়ে স্থানীয় পুলিশের উত্সকে উল্লেখ করে জানিয়েছে ফ্রান্স প্রেস সংস্থা.

পরিস্থিতি নিয়ে মন্তব্য করেছেন কাশ্মীর রাজ্যের পুলিশের প্রধান আবদুল গনি মীর. তাঁর কথামতো, সামরিক অপারেশন শুরু করা হয়েছিল শ্রীনগর শহরের চেয়ে ২৫ কিলোমিটার দূরে একটি গ্রামে, যেখানে খোঁজ ও তল্লাশী করা হচ্ছিল জঙ্গীদের খবরের জন্যে. শনিবারে এই অপারেশন চলার সময়ে ১৭ বছরের একটি কিশোর নিহত হয়েছে. এই ছেলেটির চাচা এএফপি সংস্থাকে জানিয়েছেন যে, কয়েকটি অসামরিক গাড়ী নিজের বাড়ীর কাছে দেখতে পেয়ে ভেবেছিলেন যে, কেউ তাদের গৃহ পালিত পশু চুরি করতে এসেছে. ভাগনের সাথে তারা রাস্তায় বেরিয়ে ছিলেন, তারপরে তাদের উপরে গুলি চালনা করা হয়েছে ও তাতে মাথায় গুলি লেগে কিশোরের মৃত্যু হয়েছে.

রবিবারে ভোর বেলায় এই গ্রামের বহু শত মানুষ রাস্তায় বেরিয়েছিলেন এই ঘটনায় বিক্ষোভ দেখানোর জন্য. গ্রামে থাকা সামরিক বাহিনীর লোকরা একটা কর্ডন তৈরী করেছিল, যারা পরে সংঘর্ষ শুরু হয়. সামরিক বাহিনীর লোকরা গুলি চালনা করে, যার ফলে এক জন মিছিলের লোক নিহত ও আরও কয়েকজন আহত হয়েছে. পুলিশ ঘটনা নিয়ে তদন্ত করছে বলে আবদুল গনি জানিয়েছেন.

জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে জঙ্গীদের তরফ থেকে সামরিক বাহিনীর উপরে বেশ কয়েকটি নৃশংস হামলার পরে. গত সপ্তাহে শ্রীনগরে এই রকমের হামলার ফলে আট জন সৈন্য ও দুজন পুলিশের লোক মারা গিয়েছিল.