ব্রাজিলের রাষ্ট্রপতি দিলমা রুসেফ দেশে গভীর রাজনৈতিক সংস্কার সাধনের উদ্দেশ্যে গণভোট আয়োজনের প্রস্তাব করেছেন. রাষ্ট্রপতি উক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন কর্তৃপক্ষের নীতির বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রতিবাদ আন্দোলন উপলক্ষে, জানিয়েছে স্থানীয় প্রচার মাধ্যম. সোমবার ব্রাজিলের প্রদেশগুলির গভর্নর এবং বড় বড় শহরের মেয়রদের সাথে সাক্ষাতে রুসেফ তাছাড়া কর সংগ্রহ ও ব্যয়, মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব সম্পর্কে “সর্বজাতীয় প্যাক্ট” সম্পাদনের প্রস্তাব করেছেন. রাষ্ট্রপতি স্বাস্থ্যরক্ষা ও শিক্ষার ক্ষেত্রে অবস্থার উন্নতি সাধনের অভিপ্রায়ের কথাও ঘোষণা করেছেন. রুসেফ দূর্নীতি-কে “বিশেষ কঠোর অপরাধের” পর্যায়ে উত্তরণের দ্বারা তার জন্য শাস্তি কঠোর করার পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন. তিনি আরও জানান যে, সরকার আড়াই হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে ব্রাজিলে সামাজিক পরিবহণ ব্যবস্থার বিকাশের জন্য, এবং তাছাড়া কিছু ধরণের সামাজিক পরিবহণের জন্য জ্বালানী-কর হ্রাস করবে. ব্রাজিলে ব্যাপক প্রতিবাদ আন্দোলনের অজুহাত ছিল সামাজিক পরিবহণে যাত্রার জন্য ২০ সেন্টাভো (প্রায় ০.১ ডলার) মূল্য বৃদ্ধি. ব্রাজিলের বাসিন্দারা তাছাড়া সরকারের নীতিতেও অসন্তুষ্ট, বিশেষ করে, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য রক্ষার ক্ষেত্রে অ-যথেষ্ট অর্থ বরাদ্দের জন্য.