ওয়াশিংটন আশা করে যে, সি.আই.এ-র প্রাক্তন কর্মী এডওয়ার্ড স্নোডেনের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ পেশ করার জন্য তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে রাশিয়ার সরকার “সমস্ত সম্ভাব্য ধরণ বিবেচনা করবে”, ঘোষণা করেছে হোয়াইট হাউজ. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সরকারী প্রতিনিধি কেটলিন হাইডেন বলেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কূটনৈতিক সম্পর্কের ধারায় চূড়ান্ত প্রতিবাদ জানাচ্ছে হঙকঙ এবং স্থলভাগীয় চীনের কর্তৃপক্ষের কাছে স্নোডেনের রাশিয়ায় চলে যাওয়া উপলক্ষে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আরও ঘোষণা করেছে যে, “এমন ক্রিয়াকলাপ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও হঙকঙ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মাঝে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষতি সাধন করে”. রাশিয়ার পক্ষ ঘোষণা করেছে যে, প্রাক্তন সি.আই. এ কর্মীকে গ্রেপ্তার করা ও পরবর্তীতে তাকে তার দেশের কাছে সমর্পণ করার কোনো ভিত্তি তার হাতে নেই, কারণ স্নোডেন রাশিয়ার ভূভাগে কোনো অপরাধ করে নি. ইকোয়েডরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিকার্ডো পাতিনিও আগে বলেন যে, দেশের কর্তৃপক্ষ এডওয়ার্ড স্নোডেন কাছে থেকে রাজনৈতিক আশ্রয় দানের অনুরোধ পেয়েছে. সোমবার পাতিনিও বলেন যে, ইকোয়েডর সরকার উক্ত প্রশ্নকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্কে সম্ভাব্য পরিণতির সাথে জড়াতে চায় না. তিনি উল্লেখ করেন যে, এ সম্পর্কে সিদ্ধান্ত বাক্ স্বাধীনতা এবং ব্যক্তিগত নিরাপত্তার গ্যারান্টি সুনিশ্চিত করার মূলনীতির সাথে সুসঙ্গত হবে. প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, স্নোডেন রয়েছেন “শেরেমেতিয়েভো” বিমানবন্দরের ভূভাগের হোটেলে হাভানায় রওনা হওয়ার অপেক্ষায়. গত রাতে বিমানবন্দরে এসেছিলেন ইকোয়েডর দূতাবাসের কূটনীতিজ্ঞরা. তারপর সোমবার সকালে কূটনৈতিক মিশনের গাড়িগুলি ইকোয়েডর দূতাবাসে ফিরে আসে, তবে স্পষ্ট নয় কূটনীতিজ্ঞরা স্নোডেন-কে কূটনৈতিক মিশনে আনতে পেরেছেন কি না, কারণ তাঁরা পরিস্থিতি সম্বন্ধে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন.