তিন দিন ধরে প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে উত্তর ভারতের হিমালয়সংলগ্ন উত্তরখণ্ড ও হিমাচল প্রদেশে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮২ জনে দাঁড়িয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যম এ খবর জানিয়েছে।

এদিকে উত্তরাখন্ড রাজ্যের হিমালয়সংলগ্ন এলাকায় ৬২ হাজারের বেশি তীর্থযাত্রী আটকা পড়ে আছেন। স্থানীয় প্রশাসন জানায়, সেতু ভেঙ্গে যাওয়া ভক্তরা একবছর ধরে উত্তরাখন্ডের কেদারনাথ মন্দির পরিদর্শন করতে পারছে না। সেনাবাহিনী উত্তরাখন্ডে আটকে পড়া তীর্থযাত্রীদের মধ্যে জরুরি ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছে। উদ্ধার কাজে ৫ হাজার সেনা সদস্য নিয়োজিত রয়েছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং ক্ষমতাসীন জোট ইউপিএর সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী গতকাল বিকেলে হেলিকপ্টারে করে উত্তরাখন্ডের দুর্যোগ এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে উত্তর প্রদেশ রাজ্যে গঙ্গা ও যমুনা নদীতে পানির উচ্চতা অপ্রত্যাশিতভাবে বাড়ার কারণে মঙ্গলবার অন্তত দুহাজার পরিবারকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।