বিরক্তির নানা উপাদান থাকা সত্ত্বেও রুশ-মার্কিন সম্পর্ক ইতিবাচকভাবে বিকশিত হবে, মার্কিনী সি.বি.এস টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ. মন্ত্রী উল্লেখ করেন যে, এই থিসিসটিই ছিল মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার বার্তায়, যা আগে অর্পণ করা হয়েছিল রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনকে. লাভরোভ বলেন, “রাশিয়ার রাষ্ট্রপতিও অনুরূপ উত্তর দিয়েছেন”. তাঁর কথায়, রাশিয়া সহযোগিতার ক্ষেত্রে ততটা এগিয়ে যেতে প্রস্তুত, যতটা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সাম্য ও পরস্পরের স্থিতির প্রতি শ্রদ্ধার ভিত্তিতে দু দেশের স্বার্থের মাঝে ভারসাম্য অনুসন্ধানে. সেই সঙ্গে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন যে, তবে মস্কো বর্তমানের বিরক্তির কারণগুলি সম্পর্কে চোখ বন্ধ করেও থাকবে না, যেমন রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এবং মার্কিনী কংগ্রেসের দ্বারা গৃহীত তথাকথিত “মাগ্নিতস্কি অ্যাক্ট”. লাভরোভ তাছাড়াজোর দিয়ে বলেন যে, রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতিরা বিশেষ মনোযোগ দিচ্ছেন অর্থনৈতিক সহযোগিতা বিকাশের প্রতি. তাঁর স্থিরবিশ্বাস যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া উভয়েই ব্যাবসার বিকাশে আগ্রহী. মন্ত্রী জানান, “রাষ্ট্রপতিরা সমঝোতায় এসেছেন – আর আমার মনে হয়, শিগগিরই বাস্তবায়িত হবে তা – নির্দিষ্ট নমনীয় ও তথ্যবহুল ব্যবস্থা গঠিত হবে, যাতে রাশিয়ায় ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসার জন্য পরিবেশের মনিটরিং করা যায়”.