সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র ভিয়েতনামের জাতীয় পার্লামেন্ট তাদের ইতিহাসে এই প্রথম দেশের নেতৃত্ব ও মন্ত্রীসভার বিরুদ্ধে আনীত অনাস্থা প্রস্তাবে মতামত দিতে চলেছে.

 দেশের ত্রয়োদশ নির্বাচিত পার্লামেন্টের পঞ্চম অধিবেশনে দেশের মন্ত্রীসভা ও নেতৃত্বের প্রতি অনাস্থা প্রস্তাব মে মাস থেকে হ্যানয় শহরে আলোচিত হয়েছে, অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে ৪৭জন নেতা ও পদাধিকারীর বিরুদ্ধে, এঁদের মধ্যে রয়েছেন রাষ্ট্রপতি চীয়ঙ্গ তান শাঙ্গ, প্রধানমন্ত্রী নগুয়েন তান জুঙ্গ ও পার্লামেন্টের চেয়ারম্যান নগুয়েন শিন হুঙ্গ.

 ভোটের আগে দেশের কর্তৃপক্ষের দেশ বিকাশের জন্য নেওয়া নীতির ফলপ্রসূতা ও প্রত্যেক সরকারি কর্মীর দায়িত্ব নিয়েও আলোচনা করা হয়েছে. যদি কোন একজন সরকারি কর্তার প্রতি আস্থা শতকরা ৫০ ভাগের কম দেখা যায়, তবে তাঁকে পদত্যাগের পরামর্শ দেওয়া হবে, বলে ইতার -তাস সংবাদ সংস্থা থেকে জানানো হয়েছে.

  ভিয়েতনামের সংবিধান অনুযায়ী একটি কক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্ট দেশের সর্ব্বোচ্চ ক্ষমতার সংগঠন. জাতীয় সভা দেশের মন্ত্রীসভা ও রাষ্ট্রপতিকে নির্বাচন ও বরখাস্ত করার ক্ষমতা রাখে.