দক্ষিণ কোরিয়ার সর্বোচ্চ সামরিক পরিচালকমন্ডলী শুক্রবার উপদ্বীপে নিরাপত্তার মূল্যায়ন সংক্রান্ত এক বৈঠকে সমবেত হয়, উত্তর কোরিয়ার সাথে কয়েক মাস ব্যাপী উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্কের পরে আলাপ-আলোচনা শুরু করার জন্য দু দেশের প্রস্তুতি উপলক্ষে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার “ইয়োনহাপ” সংবাদ এজেন্সি. দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী কিম গোয়ান জিন এক ভিডিও-সম্মেলন আয়োজন করেন, যাতে দেশের ১৪০ জন সর্বোচ্চ সামরিক কর্মী অংশগ্রহণ করেন, সেই সঙ্গে সামরিক সদর দপ্তরগুলির ঐক্যবদ্ধ কমিটির সভাপতি, সামরিক শাখাগুলির অধিকর্তারা এবং প্রধান সামরিক অভিযানের কম্যান্ডাররা. প্রতিরক্ষামন্ত্রী সামরিক অধিকর্তাদের ধন্যবাদ জানান সৈনিকদের প্রস্তুত করার জন্য, যারা “উত্তর কোরিয়ার তরফ থেকে সামরিক প্ররোচনার ক্ষেত্রে প্রত্যুত্তরী আঘাত হানতে পারবে”. তিনি আলাপ-আলোচনা শুরু করার ব্যাপারে পিয়ংইয়ংয়ের সম্মতি সমর্থন করেন, এ কথা জোর দিয়ে বলে যে, তা সাহায্য করবে “আস্থার প্রক্রিয়ার” অগ্রগতিতে – যা উত্তর কোরিয়ার প্রতি রাষ্ট্রপতি পাক কীন হে-র নীতির অংশ.