সিরিয়ার সরকারী বাহিনী গোলান মালভূমিতে ইস্রাইল ও সিরিয়ার মাঝে একমাত্র সীমান্ত চৌকি বৃহস্পতিবার আবার নিজের নিয়ন্ত্রণে ফিরিয়ে এনেছে, যা বিদ্রোহীরা দখল করে নিয়েছিল. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে “সি.এন.এন” টেলি-চ্যানেল স্থানীয় টেলিভিশনের উদ্ধৃতি দিয়ে. আগে বৃহস্পতিবারই ইস্রাইলী প্রচার মাধ্যম সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের জঙ্গীদের দ্বারা “কুনেইত্রা” সীমান্ত চৌকি দখলের খবর দিয়েছিল. এর পরে ইস্রাইলী বাহিনী গোলান মালভূমি এলাকা “রুদ্ধ এলাকা” হিসেবে ঘোষণা করে, যা “কুনেইত্রা” সীমান্ত চৌকির পাশে অবস্থিত. ইস্রাইলী বাহিনীর প্রেস-সার্ভিসের কর্মী ব্যাখ্যা করে বলেন যে ইস্রাইলী-সিরীয় সীমান্ত চৌকি ও তার আশপাশের এলাকা বাইরের লোকেদের জন্য বন্ধ করা হয়েছে “নিরাপত্তার খাতিরে”. তিনি গোলান মালভূমির সিরীয় অংশে সঙ্ঘর্ষ সম্বন্ধে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন. সংবাদ প্রচারের ইন্টারনেট-রিসোর্স “ওয়াই-নেট” জানিয়েছে যে, বর্তমানে সীমান্ত চৌকির এলাকায় সিরিয়ার বাহিনী এবং বিরোধীপক্ষের সমর্থকদের মাঝে কঠোর লড়াই চলছে.