আজ ৬ জুন পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক রুশ ভাষা দিবস। জাতিসংঘের উদ্দ্যোগে পালিত হয়ে থাকে এ উৎসব। পৃথিবীতে বহুল ব্যবহৃত ভাষার একটি হচ্ছে রুশ ভাষা এবং জাতিসংঘের ৬টি দাপ্তরিক ভাষার একটি হলো এ ভাষা। যিনি মহকাশে ভ্রমণে যাবেন তাকে অবশ্যই রুশ ভাষা জানতে হবে। তাই এ ভাষাকে মহাকাশ ভাষা হিসেবেও নামকরন করা যায়।

আন্তর্জাতিক রুশ ভাষা দিবস হিসেবে ৬ জুনকে বেছে নেওয়ার পিছনে রয়েছে বিশেষ কারণ। ১৭৯৯ সালের এ দিন মস্কোতে জন্মগ্রহণ করেন খ্যাতিমান রুশ কবি আলেক্সান্দার পুশকিন। তাকে আধুনিক রুশ সাহিত্যের জনক বলে স্বৃকীতি দেয়া হয়। পুশকিনের সৃষ্ট সাহিত্যকর্ম সব বয়সীর, সব ধর্মের, সব জাতির মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে। বিশ্বের অনেক ভাষায় পুশকিনের কবিতা ও গল্প-উপন্যাস অনুবাদ করা হয়েছে। আজকের দিনে পুরো বিশ্বের ১৬৪ মিলিয়ন মানুষের মাতৃভাষা হচ্ছে রুশ। বিদেশি ভাষা হিসেবে রুশ ভাষায় দক্ষতা রয়েছে এমন মানুষের সংখ্যা হচ্ছে ১১৪ মিলিয়ন। বিগত কয়েক বছরে আন্তর্জাতিক ভাষায় কথোপকথন হিসেবে রুশ ভাষার ব্যবহার উল্লেখযোগ্যহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আর তা রাজনীতি ও অর্থনৈতিক জীবণে প্রভাব রাখছে।

রাশিয়ার পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের স্পিকার ভালেনতিনা মাতভিনেনকা আরো জানান, “আমাদের সাথে সম্পৃক্ত আছে অনেক বৃহত প্রকল্পো যেমনঃ ইউরো-এশিয়া ইউনিয়নের পূনঃগঠন, বিশ্ব বানিজ্য সংস্থায় রাশিয়ার যোগদান ও রাশিয়ার অভ্যন্তরে গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগ অবকাঠামো নির্মাণ ইত্যাদি। আর এই নতুন তরঙ্গ বিশ্বে রুশ সংস্কৃতির প্রতি আকর্ষন বৃদ্ধি করেছে। রুশ ক্লাসিক্যাল সাহিত্য, রুশ থিয়েটার শিল্প ও রুশ সংঙ্গীত। রাশিয়ার ভিন্ন ভিন্ন ধাঁচের জাদুঘরগুলোর উদ্দ্যোগে বিদেশে আয়োজিত প্রদর্শনী। আর এ সব কিছু সারা বিশ্বের মানুষের কাছে আগ্রহ বৃদ্ধি করেছে।“

বর্তমানে বিশ্বের ১০০টি দেশে রুশ ভাষা শিখানো হচ্ছে। ৭৯টি দেশে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষাদান করা হয়। স্কুল রুশ ভাষা পড়ানো হয় এমন দেশের সংখ্যা হচ্ছে ৬৪টি। রাশিয়ার কমিউনিস্ট পার্টির নেতা গেনাদি জুগানোভ বলেন, “বিভিন্ন সময়ে রাশিয়ার বিভিন্ন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে ৬ লাখ বিদেশি ছাত্র-ছাত্রী ডিগ্রী লাভ করেছে এবং তাঁরা সবাই রুশ ভাষা স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারেন। আজ অন্তত ১০-১৫টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা রুশ ভাষায় নিজেদের মনোভাব প্রকাশ করতে পারেন। এদের মধ্যে রয়েছে চীনের সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান ছিজেইয়ান ছিজেমিন। তিনি শুধু যে রুশ ভাষায় কথাই বলতে পারেন তা নয়, এমনকি রুশ গান গাইতে পারেন। ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে আমি যখন ভিয়েতনাম সফরে যাই পুতিন খুব আশ্চর্য হয়েছেন দেখে যখন আমাদের স্বাগতম জানাতে আসা ২০ জন মন্ত্রীর ১৭ জনই রুশ ভাষায় কথা বলেছেন।“

আলেক্সান্দার পুশকিনের জন্মবার্ষিকী ও রুশ ভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ৬ জুন রাশিয়ায় কনসার্ট, মেলাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আজ বিশ্বের ১৫০টি জাতিকে একত্রিত করেছে রুশ ভাষা। রুশ ভাষা ও বহু শতক ধরে এ ভাষায় সৃষ্ট সংস্কৃতি রাশিয়ার নানা জাতির জনগনকে এক সুতায় গেঁথেছে।