রাশিয়ার সেন্ট্র্যাল ব্যাঙ্ক শেষ দফায় আসন্ন সোচি অলিম্পিক গেমসের প্রতি উত্সর্গীকৃত মুদ্রা বাজারে ছাড়লো. ৪টি স্বর্ণ ও ৬টি রৌপ্য মুদ্রা - সব মিলিয়ে মোট ১০টি. তদুপরি ডিসেম্বর মাস নাগাদ লগ্নিক্ষম দুর্মূল্য ধাতব মুদ্রার শেষ প্রস্থও বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা রয়েছে. আর সেগুলি শুধু স্মারক হবে না,  রীতিমতো লগ্নি করার মাধ্যম হবে.

    বব-স্লেজ, স্কিং রেস, শর্ট ট্র্যাক, ফিগার স্কেটিং, স্কেলিটন ও অন্যান্য শীতকালীন ক্রীড়াগুলিকে অতঃপর সোনা ও রূপোয় মুড়ে অমর করে রাখা হচ্ছে. রাশিয়ার সেন্ট্র্যাল ব্যাঙ্ক চতুর্থ তথা শেষ দফায় অলিম্পিকের মুদ্রা বাজারে আবর্তণে ছাড়লো. ২০১১ সাল থেকে অলিম্পিক মুদ্রা খোলা বাজারে ছাড়া শুরু হয়েছিল ও এখনো পর্যন্ত ৫ কোটি মুদ্রা ছাড়া হল. চাহিদা থাকলেই জোগান বাড়ে - বলছেন মস্কো ন্যুমেরিক্যাল সোসাইটির আধিকারিক মুরমান ইয়াকোভোশভিলি. -

    লোকে সারাক্ষণ চাইছে, আগ্রহ প্রকাশ করছে, কিছু কিছু স্মারক মুদ্রা কয়েক দফায় বাড়তি ঢালাই করতে হয়েছে. পেশাদার সংগ্রহকারীরা সোচি অলিম্পিকের প্রতি উত্সর্গীকৃত মুদ্রাগুলি সংগ্রহ করছেন.

    বিশেষজ্ঞরা ইতিমধ্যেই এই মুদ্রাগুলোকে বিশ্বে শ্রেষ্ঠতম বলে অভিহিত করছেন. মুদ্রার অন্যতম নক্সাকারী শিল্পী আলেক্সান্দর বাকলানভ বলছেন, যে নক্সা তৈরি করার পরেও প্রচুর জটিল প্রযুক্তিগত কাজ থাকে. -

    আমরা লেজার রশ্মির মোড়কের প্রযুক্তি ব্যবহার করে শিল্পীদের হস্তকর্মের উপযুক্ত ব্যঞ্জনা দিতে পেরেছি, আমরা চেয়েছিলাম একেবারে স্বকীয় শৈলী প্রয়োগ করতে.

    ডিসেম্বর মাসে শেষ দফায় অলিম্পিকের স্মারক মুদ্রা বাজারে ছাড়া হবে - সেগুলি হবে লগ্নিক্ষম গভীর নীল রঙের একশো রুবলের নোট এবং একটা রৌপ্য ও দুটো স্বর্ণ মুদ্রা. ২০১১ সালে বাজারে প্রথম ছাড়ার পরে এখন তার দাম কয়েকগুণ বেড়েছে এবং আগামীতে বাড়তেই থাকবে, বলে অভিমত ব্যক্ত করছেন ফাইন্যান্সিয়াল স্ট্যান্ডার্ড ব্যাঙ্কের কোষাধ্যক্ষ রোমান আন্দ্রেয়েভ.