ইরান নিজেদের পারচিন সামরিক ঘাঁটিতে মাটি কাটা, রাস্তা বানানো ও সম্ভাব্য সেখানের বাড়ী ঘর ভেঙে ফেলার যে কাজ করছে, তাতে আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি সংস্থার পক্ষ থেকে পর্যবেক্ষকরা সেখানে প্রবেশের সুযোগ পেলে, তাদের পক্ষে অসুবিধা হবে প্রমাণ যোগাড় করতে যে, সেখানে কখনও পারমানবিক অস্ত্র পরীক্ষার কাজ করা হয়েছিল. এই কথা বলেছেন ইউকিও আমানো – সংস্থার প্রধান. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, সংস্থার পক্ষে আগের মতই গুরুত্বপূর্ণ হল, এই কেন্দ্রে যাওয়ার উপায় বের করা, কারণ সেখানে গেলে অনেক কিছুই জানা যেতে পারে.

সংস্থার বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, পারচিন ঘাঁটিতে পারমানবিক অস্ত্র পরিকল্পনা নিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে, আর ইরান থেকে বলা হয়েছে যে, পারচিন একটি সামরিক ঘাঁটি মাত্র ও পারমানবিক পরিকল্পনার সঙ্গে তার কোন সম্পর্ক নেই, সুতরাং সংস্থার পক্ষ থেকে পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের পর্যবেক্ষণের কোন মানে হয় না.