বুধবারে এই ঘোষণা করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী আলি আকবর সালেখি, তিনি তেহরানে সিরিয়ার মিত্র দেশ গুলির এক সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে এই কথা বলেছেন. সালেখি বিশ্ব সমাজের কাছে সিরিয়াতে রক্তক্ষয় অবিলম্বে বন্ধ করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন ও বিরোধী পক্ষকে অবিলম্বে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করতে ও শান্তির পথে সিরিয়ার বিরোধ সমাধান করতে আহ্বান জানিয়েছেন. তিনি একই সঙ্গে উল্লেখ করেছেন যে, তেহরান সব কিছুই করবে যাতে সিরিয়াতে স্থিতিশীলতা ও শান্তি ফিরে আসে.

ইরাকের পররাষ্ট্র মন্ত্রী হোশিয়ার জিবারি, নিজের পক্ষ থেকে হিংসাকে সমালোচনা করেছেন, যা সিরিয়াতে দুই পক্ষ বেছে নিয়েছে পথ হিসাবে. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, এই বিরোধের একেবারে শুরু থেকে রাজনৈতিক ভাবেই এই সঙ্কট নিরসনের কথা বলে এসেছেন ও বিদেশী সামরিক অনুপ্রবেশের তাঁরা ঘোরতর বিরোধী.

0তেহরানে এই সম্মেলনে হচ্ছে কয়েকদিন আগে জর্ডনের রাজধানী আম্মানে হয়ে যাওয়া এই রকমে আরেকটি সিরিয়ার মিত্র গোষ্ঠীর সম্মেলনের বিকল্প হিসাবে, তেহরানের সম্মেলনে সিরিয়ার সঙ্কট নিরসনের প্রতি আগ্রহী সমস্ত পক্ষকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে. এতে যোগ দিয়েছে চল্লিশটিরও বেশী দেশ, যাদের মধ্যে চিন ও রাশিয়াও রয়েছে.