রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানব অধিকার সংক্রান্ত পরিষদ বুধবার এক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে, যাতে সিরিয়ার সঙ্ঘর্ষে বিদেশী নাগরিকদের অংশগ্রহণের নিন্দা করা হয়েছে. সিদ্ধান্তের পক্ষে ভোট দিয়েছে ৩৬ জন সদস্য, বিপক্ষে – ১. আরও ৮ জন সদস্য ভোটদান থেকে বিরত থেকেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক ও কাতারের দ্বারা প্রস্তুত করা খসড়া সিদ্ধান্তে “এল-কুসেইরে সিরিয়ার শাসন ব্যবস্থার পক্ষে লড়াই করা বিদেশী যোদ্ধাদের হস্তক্ষেপের নিন্দা করা হয়েছে”. সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে যে, সঙ্ঘর্ষে বিদেশী শক্তির উপস্থিতি “অঞ্চলে স্থিতিশীলতা গুরুতরভাবে বিপন্ন করে”. রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সরকারী প্রতিনিধি আলেক্সান্দর লুকাশেভিচ বলেছেন, “একেবারেই স্পষ্ট যে, আবার কথা হচ্ছে সিরিয়া সম্পর্কে মস্কোয় অর্জিত রুশ-মার্কিন সমঝোতা পালনে বাধা দেওয়ার চেষ্টার, সঙ্কীর্ণ রাজনৈতিক স্বার্থকে প্রধান লক্ষ্যের উপরে স্থাপনের চেষ্টার, অথচ প্রধান লক্ষ্য হল – সিরিয়ায় রক্তক্ষয় বন্ধ করা এবং আন্তঃসিরীয় সংলাপ গড়ে তোলার জন্য আন্তর্জাতিক জনসমাজের সম্মিলিত রাজনৈতিক-কূটনৈতিক প্রচেষ্টার সাফল্য সুনিশ্চিত করা”.