মঙ্গলবারে এক সাংবাদিক সম্মেলনে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রী লাভরভ আরও বলেছেন যে, এটা রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারন সভায় যথেষ্ট একদেশদর্শী ও অবাস্তব ধরনের সিরিয়া নিয়ে সিদ্ধান্ত প্রস্তাব করা, যা নিয়ে ইতিমধ্যেই ভোটাভুটি হয়েছে. এই জেনেভা সম্মেলনে কারা অংশ নেবে, তা নিয়ে বলতে গিয়ে লাভরভ বলেছেন রাশিয়ার জন্য এই সম্মেলনে ইরানের যোগদান একটি মুখ্য বিষয়. তিনি আরও বলেছেন যে, এই সম্মেলনে সমস্ত স্বার্থ সংশ্লিষ্ট দেশ কোন রকমের ব্যতিক্রম ছাড়াই যোগদান করবে, যারা সিরিয়ার কোন না কোন পক্ষের উপরে প্রভাব ফেলতে সক্ষম. ইরান এই বৃত্তের একটি অবিসংবাদিত ভাবেই সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ দেশ. মার্কিন পররাষ্ট্র সচিব জন কেরি ও ফ্রান্সের পররাষ্ট্র প্রধান লোরান ফাবিউসের সঙ্গে সাক্ষাত্কার নিয়ে মন্তব্য করে সের্গেই লাভরভ বলেছেন যে, তাঁর সঙ্গে আলোচনায় যাঁরা ছিলেন, তাঁরাও একমত যে, সিরিয়া নিয়ে সম্মেলনে যাঁরা অংশ নেবেন, তাঁদের সম্বন্ধে একটি স্পষ্ট ধারণা আগে থেকেই থাকা উচিত্.