সাময়িক ভাবে পরিচালক সভা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে. বুধবারে এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেছেন ঐস্লামিক উন্নয়ন ব্যাঙ্কের সভাপতি আহমাদ মোহামেদ আলি আল মাদানি, দুশানবে শহরে এই ব্যাঙ্কের ৩৮তম পরিচালনা সভার বৈঠকের শেষে.

তাঁর কথামতো, এই সিদ্ধান্ত পরিচালক সভা নিয়েছে, কারণ, ঐস্লামিক উন্নয়ন ব্যাঙ্কের সদস্য একই সঙ্গে ঐস্লামিক সহযোগিতা সংস্থার সদস্য হওয়া দরকার, আর সেখানে গত বছরের আগষ্ট মাসে সিরিয়ার সদস্য থাকা মুলতুবি রাখা হয়েছে. যদিও ঐস্লামিক উন্নয়ন ব্যাঙ্ক কোনও মানবিক সাহায্যের প্রতিষ্ঠান নয়, তবুও এই ব্যাঙ্কের কাছে সিরিয়ার উদ্বাস্তুদের সহায়তা করার জন্য প্রকল্প ছিল, যা আসন্ন কিছু দিনের মধ্যে বাস্তবায়ন করা শুরু হবে বলে সভাপতি জানিয়েছেন.

0২০১২ সালের ১৫ই আগষ্ট তুরস্ক ও সৌদী আরবের সক্রিয় সমর্থনে সিরিয়ার সদস্য থাকা ঐস্লামিক সহযোগিতা সংস্থায় মুলতুবি করা হয়েছিল, যদিও বাশার আসাদের অবস্থানকে সেখানে ইরান সমর্থন করেছিল.