বৃটিশ সেনাবাহিনীর এক সৈনিককে দক্ষিণ-পূর্ব লন্ডনে বুধবার দিনের বেলা দুই অনুমিত ইস্লামপন্থী হত্যা করেছে. দুপুর ২টা নাগাদ দুই কৃষ্ণকায় তরুণ মোটরগাড়িতে সৈনিককে চাপা দেয়, আর তারপর, মাংস-কাটার ছুরি এবং আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে তাকে আক্রমণ করে এবং তার মুন্ডচ্ছেদ করে. তারা পথচারীদের ভিডিও তুলতে বাধ্য করে. একটি ভিডিও-তে একজন আক্রমণকারী বলে, “আই ফর অ্যান আই, টুথ ফর এ টুথ(চোখের বদলে চোখ, দাঁতের বদলে দাঁত). আমরা থামব না, যতদিন না তোমরা আমাদের শান্ত থাকতে দিচ্ছ”. এর পরে আক্রমণকারীদের গুলি করে পুলিশ. তারা আহত হয় এবং তাদের হাসপাতলে রাখা হয়েছে পাহারাধীনে. বৃটিশ কর্তৃপক্ষ এ ঘটনাকে সন্ত্রাসবাদী ক্রিয়া বলে অবিহিত করেছে. দেশের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন নিজের ফ্রান্স সফর থেকে তাড়াতাড়ি লন্ডনে ফিরে আসেন. ন্যাটো জোটের মহাসচিব অ্যান্ডের্স ফগ রাসমুসেন লন্ডনে এ সন্ত্রাসের নিন্দা করেন. বৃটেনের মুসলমান পরিষদও এ অপরাধের নিন্দা করেছে. সন্ত্রাসের খবর পাওয়ার পরে উওলিচ এলাকায় ইংল্যান্ড রক্ষা লীগ নামে উগ্র-দক্ষিণপন্থী সংস্থার সক্রিয় কর্মীদের সাথে পুলিশের সঙ্ঘর্ষ ঘটে. তাছাড়া জানানো হয়েছে যে, বুধবার সন্ধ্যায় পুলিশ মসজিদ আক্রমণের দুটি প্রচেষ্টা প্রতিহত করেছে.