এ বছর সেন্ট-পিটার্সবার্গের পরিষেবা ও অর্থনীতি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ডিগ্রিগ্রহীতা আনাস্তাসিয়া বোচারোভা বিশ্বে সেরা চাকরি ( The best job in the world ) প্রতিযোগিতার ফাইন্যালে উঠেছেন. অস্ট্রেলিয়ার পর্যটন পরিষদ এই প্রতিযোগিতার আহ্বায়ক. আনাস্তাসিয়া প্রায় ৪০ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলেছেন আর সব মিলিয়ে ৩ লক্ষ ৩০ হাজার প্রতিযোগী ছিল. আনাস্তাসিয়ার মতে, ইংরাজি ভাষায় দখল ছাড়াও থাকতে হবে অ্যাডভেঞ্চারী চরিত্র এবং দায়িত্বশীলতা ও মিশুকে স্বভাব.

    সবুজ মহাদেশের পর্যটক পরিষদ স্থানীয় পর্যটন এজেন্সি 'ট্যুরিজম কুইন্সল্যান্ড'কে নকল করেছে. ২০০৯ সালে ঐ এজেন্সি অনুরূপ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল. সারা বিশ্বে ঐ প্রতিযোগিতা রীতিমতো সাড়া ফেলেছিল. তখন তরুন পর্যটকদের হ্যামিল্টন দ্বীপে বিগ ব্যারিয়র রিফের নজরদারের পদ প্রস্তাব করা হয়েছিল. সেবার প্রার্থীদের কাছ থেকে চাওয়া হয়েছিল ইংরাজি ভাষায় সাবলীলতা, সাঁতারে পটুত্ব, চিত্তাকর্ষক লেখালেখি ও ফোটো তোলার নেশা. এবার ছ'ছটি খালি পদের বিজ্ঞাপন বেরিয়েছে  - যার মধ্যে আছে জাতীয় স্তরে কৌতুকশিল্পীর পদ, বিরল জনবসতির এলাকাগুলির গবেষক, সোমালিয়ে,  সাগর বেলাভূমির নজরদার ও ফোটোগ্রাফের পদ. কৌতুক শিল্পী পদপ্রার্থীকে যত বেশি সম্ভব নিউ সাউথ ওয়েলস স্টেটের (যার রাজধানী সিডনি) বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানাদি, লোকোত্সব, পার্টিতে উপস্থিত থেকে পরে ট্যুইটার ও অন্যান্য সামাজিক নেট-ওয়ার্কে সে সব জায়গায় তার সঞ্চিত অনুভূতি ব্যক্ত করতে হবে. অ্যাডভেঞ্চার সন্ধানকারীদের দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় বন্য প্রকৃতির মধ্যে ভ্রমণ করতে করতে বন্য জন্তুদের পর্যবেক্ষন করা, আদিবাসীদের সাথে কথাবার্তা বলার ও অবশ্যই চোখে দেখা ও কানে শোনা সব কিছু চিত্তাকর্ষক ভাষায় ডায়েরীতে লিপিবদ্ধ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে.

     চির বসন্তের ভূমি কুইন্সল্যান্ডে পাড়ি জমাবে বেলাভূমির নজরদার শুধু একটি শর্তে - তাকে যাতায়াত করতে হবে শুধু পায়ে হেঁটে. মেলবোর্নে আস্তানা গাড়বে ফোটোগ্রাফ, যার কর্তব্য হবে স্থানীয় অধিবাসীদের জীবনযাত্রা প্রণালী প্রাঞ্জলভাবে তুলে ধরা. আরও একজন সফল প্রার্থীকে পাঠানো হবে অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমে, যেখানে সে রেস্তোঁরাগুলিতে ঢুঁ মেরে স্থানীয় সব পরিবেশিত খাবারদাবারের স্বাদগ্রহণ করে, তার মূল্যায়ণ করবে ও পাঠকদের সাথে ভাগ করে নেবে তার মতামত. প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের থাকাখাওয়ার খরচা ও ১ লক্ষ ডলার বেতন দেওয়া হবে. প্রতিযোগিতায় চূড়ান্ত বিজয়ীদের নাম বিচারকমন্ডলী ঘোষণা করবেন জুন মাসে.