পাকিস্তানের ভাবী প্রধানমন্ত্রী, পার্লামেন্টারী নির্বাচনে জয়লাভ করা পাকিস্তান মুসলিম লীগ পার্টির প্রধান নওয়াজ শরিফ বলেছেন যে, স্থানীয় চরমপন্থী-তালিবদের সাথে সংলাপের পক্ষে মত প্রকাশ করেন. লাহোরে নিজের পার্টির সক্রিয় কর্মী ও পক্ষ-সমর্থকদের সাথে সাক্ষাতে বক্তৃতা দিয়ে তিনি এ কথা বলেছেন. স্থানীয় প্রচার মাধ্যম ভাবী প্রধানমন্ত্রীর উক্তি ব্যাপকভাবে প্রচার করছে. নওয়াজ শরিফের কথায়, বিগত বছরগুলিতে পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে ইতিমধ্যে ৪০ হাজারেরও বেশি লোকের জীবন হারিয়েছে, যা তাঁর কথায়, অতি উচ্চ মূল্য. তবে বিশেষজ্ঞদের কাছে খুব স্পষ্ট নয়, সুনির্দিষ্টভাবে কি করে নওয়াজ শরিফ পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমে তত্পর “তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান” আন্দোলনের তালিব জঙ্গীদের সংলাপের জন্য আকর্ষণ করতে চান. সন্ত্রাসবাদী দলগুলি সরকারের সাথে আলাপ-আলোচনা চালানোর প্রয়োজনীয় শর্ত হিসেবে সর্বদা অপূরণীয় দাবি পেশ করেছে তাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান বন্ধ করার এবং দেশের বেশির ভাগ এলাকায় শরিয়তের আইন প্রবর্তন করার.