চীন ও ভারত সমঝোতায় এসেছে যে, তাদের মাঝে বিদ্যমান সীমান্ত সমস্যার আমূল মীমাংসা হওয়া পর্যন্ত সীমানায় শান্তি ও স্বস্তি বজায় রাখবে. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জানিয়েছে চীনা প্রচার মাধ্যম যৌথ চীনা-ভারত বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়ে, যা স্বাক্ষরিত হয়েছে চীনের রাষ্ট্রীয় পরিষদের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়ানের ভারত সফরের কাঠামোতে. এ দলিলে উল্লেখ করা হয়েছে যে, উভয় পক্ষ “সীমান্ত সমস্যা নিয়ে দু দেশের বিশেষ প্রতিনিধিদের কাজে সন্তোষ প্রকাশ করছে”. দলিলে উল্লেখ করা হয়েছে যে, চীন ও ভারত সব রকমে বিকাশ করবে বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক, জ্বালানী ও সামরিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা বিকাশ করবে. পক্ষদ্বয় তাছাড়া সমঝোতায় এসেছে যে, পরে এ বছরেই যৌথ সামরিক মহড়া পরিচালনা করবে, এবং তাছাড়া স্থলবাহিনী, বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনীর মাঝে বিনিময় সক্রিয় করে তুলবে. এ বছরের এপ্রিলে ভারত চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে চীনা বাহিনীর দ্বারা ভারতের লাদাখ অঞ্চলে চীনা-ভারত সীমানা লঙ্ঘনের. চীনা পক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করে. এ ঘটনা শুরু হওয়ার তিন সপ্তাহ বাদে উভয় দেশের সেনাবাহিনী নিজেদের প্রাথমিক অবস্থান-স্থলে পিরে আসে.