ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রীমনমোহন সিং চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়ানের সাথে সাক্ষাতে দক্ষিণ পীত সাগরে বিতর্কিত দ্বীপপুঞ্জের পরিস্থিতি সম্বন্ধে চীনের স্থিতি সমর্থন করতে অস্বীকার করেছেন. চীনা পক্ষ ভারতে চীনের প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় যে যৌথ ঘোষণাপত্র গ্রহণ করা হবে, তাতে এ ধারা অন্তর্ভুক্ত করতে চায় যে, প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ভূভাগীয় বিতর্ক হল পক্ষগুলির নিছক আভ্যন্তরীন ব্যাপার এবং অন্যান্য দেশের তাতে হস্তক্ষেপ করা উচিত্ নয়. কিন্তু শ্রী সিং এ স্থিতি সমর্থন করতে অস্বীকার করেছেন এবং বলেছেন যে, কথা হচ্ছে আন্তর্জাতিক জল-এলাকার. এইভাবে, মনে হয়, ঘোষণাপত্রে উল্লেখ করা হবে গোটা এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তার কথা. দক্ষিণ পীত সাগরে অবস্থিত নানশা (স্প্র্যাটলি) দ্বীপপুঞ্জ, এবং তাছাড়া সিশা (প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ) ও জুনশা দ্বীপপুঞ্জের পূর্ণ অথবা আংশিক দাবি করছে পাঁচটি দেশ – চীন, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন এবং ব্রুনেই. বেজিং এ ভূভাগ শুধু চীনের অর্থনৈতিক এলাকা বলে মনে করে.