গ্রেট-বৃটেন, সুইডেন এবং অন্যান্য ইউরোপীয় দেশের বাণিজ্য কোম্পানিগুলি বাংলাদেশে নিজেদের সেলাই কারখানাগুলির নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নতির জন্য বার্ষিক পুঁজি বিনিয়োগের পরিমাণ হবে৫০ কোটি ডলার. ভারতের “ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস” পত্রিকা মঙ্গলবার লিখেছে যে, কোম্পানিগুলি মিলিত পুঁজি বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার উপকণ্ঠে সাভার শহরে আট-তলা ভবন ধ্বসে পড়া উপলক্ষে, যেখানে তাদের ফরমাশ অনুযায়ী পোষাক সেলাই করা হত. বিপর্যয় ঘটে ২৪শে এপ্রিল. নিহতদের সংখ্যা ১১২৭ জন, এ সূচক অনুযায়ী এ বিপর্যয়টি বিগত ৩০ বছরে সারা পৃথিবীতে ঘটা সমস্ত বিপর্যয়ের মধ্যে সবচেয়ে বড় বিপর্যয় ছিল. তৈরী পোষাকের রপ্তানী বাংলাদেশের আয়ের মুখ্য ধারা, বছরে তা পৌঁছোয় ২ হাজার কোটি ডলারে. এ সব পোষাক পশ্চিমী কোম্পানিগুলিকে অতি-মুনাফা এনে দেয়, যারা এ দেশে সস্তা শ্রম-শক্তি ব্যবহার করে.