কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে শনিবার পাকিস্তানে ঐতিহাসিক জাতীয় নির্বাচন চলছে। শনিবার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। ভোট গ্রহণ শুরু হওয়ার আগে থেকেই ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলবে। এদিকে গত কয়েকদিনের সহিংসতার ধারাবাহিকতায় আজ নির্বাচনের দিনেও সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। করাচিতে দুটি শক্তিশালী বোমা হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত ও আরো ২০ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ  জনমত জরিপে সাবেক ক্রিকেট তারকা ও তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানের জনসমর্থন আরেক ধাপ বেড়েছে। 

তবে নির্বাচনে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের নেতৃত্ত্বাধীন মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পাবে বলে ব্যাপকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এরপরই আছে ইমরানের পিটিআই, আর তৃতীয় অবস্থানে আছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)।