রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ এবং মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিব জন কেরি মঙ্গলবার মস্কোয় আলাপ-আলোচনার সময় শান্তি সম্মেলন আয়োজন সম্পর্কে সমঝোতায় এসেছে, যাতে সিরিয়া সঙ্কটের মীমাংসা খুঁজে বার করা যায়. মস্কোয় এ সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে দু দেশের পররাষ্ট্র বিভাগের প্রধানেরা বলেছেন যে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সিরিয়া সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করা উচিত্. রাষ্ট্রপতি আসদ এবং সিরিয়ার বিরোধীপক্ষকে বোঝানো দরকার মীমাংসা সংক্রান্ত জেনেভা পরিকল্পনা গ্রহণ করার ব্যাপারে, যাতে আলাপ-আলোচনার পথে সঙ্ঘর্ষ মীমাংসা অনুমিত. মস্কোয় জন কেরি বলেন, “আমরা মনে করি যে, জেনেভা বিবৃতি হল সিরিয়ায় রক্তক্ষয় শেষ করার দিকে মুখ্য ধারা”, এবং এ সমঝোতাকে তিনি “নতুন সিরিয়ার” দিকে “পথ মানচিত্র” বলে অভিহিত করেন. তিনি যোগ করে বলেন যে, সম্মেলন আয়োজন করা উচিত যথাসম্ভব সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে এবং আশা প্রকাশ করেন যে, তা মে মাস শেষ হওয়ার আগে অনুষ্ঠিত হবে. নিজের তরফ থেকে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন : “আমরা সমঝোতায় এসেছি যে, রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার সরকার এবং বিরোধীপক্ষকে রাজনৈতিক মীমাংসা অনুসন্ধানের জন্য উদ্বুদ্ধ করবে”. মীমাংসার জেনেভা পরিকল্পনায় সিরিয়ায় শাসন ক্ষমতা “অন্তর্বর্তী সরকারকে” হস্তান্তর করা অনুমিত, যা গঠিত হবে দেশের বর্তমান সরকার এবং বিরোধীপক্ষের প্রতিনিধিদের নিয়ে. সেই সঙ্গে, রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এ পরিকল্পনাকে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে ব্যাখ্যা করছে. বিশেষ করে, ওয়াশিংটন মনে করে যে, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের সরে যাওয়া উচিত্. রাশিয়া এ স্থিতি সমর্থন করে না. মস্কো আলাপ-আলোচনায় কেরি বলেছেন যে, তাঁর পক্ষে কল্পনা করা কঠিন যে, যুদ্ধ শেষ হওয়ার পরে আসদ দেশের রাষ্ট্রপতির পদে অধিষ্ঠিত থাকতে পারেন. তবে, তাঁর কথায়, এ প্রশ্ন মীমাংসিত হওয়া উচিত্ সামরিক ক্রিয়াকলাপ বন্ধ হওয়ার পরেই.