ইরানের কর্তৃপক্ষ পশ্চিমী দেশগুলিকে, বিশেষ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে, দোষ দিচ্ছে সন্ত্রাসবাদী দলগুলিকে সাহায্য করার, যারা সিরিয়ার ভূভাগে তত্পর রয়েছে এবং অন্যান্য অস্ত্রের সাথে রাসায়নিক অস্ত্রও ব্যবহার করছে. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার বলেছেন ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি রামিন মেহমানপরস্ত. তিনি জোর দিয়ে বলেছেন যে, সিরিয়ার কর্তৃপক্ষই প্রথম আন্তর্জাতিক সংস্থাকে প্রস্তাব করে দেশের ভূভাগে রাসায়নিক অস্ত্রের সম্ভাব্য ব্যবহারের ঘটনা তদন্ত করার. সিরিয়ার সরকার ঘোষণা করেছে যে, বিদ্রোহীরা ১৯শে মার্চ খালেব (আলেপ্পো) প্রদেশে রাসায়নিক ্স্ত্র ব্যবহার করেছে. বিরোধীপক্ষ নিশ্চয়োক্তি করেছে যে, সরকারী বাহিনী তা ব্যবহার করেছে হোমসে গত বছরের ডিসেম্বরে. সোমবার সিরিয়ায় মানব অধিকার লঙ্ঘনের তদন্ত সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষ কমিশন ঘোষণা করে যে, তাদের হাতে প্রত্যক্ষ প্রমাণ আছে দেশে সঙ্ঘর্ষের কোনো পক্ষের দ্বারা রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের ঘটনার.