ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মনে করে সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার হল সেই “লাল রেখা”, যা অতিক্রম করা উচিত্ নয়, মঙ্গলবার বলেছেন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি আকবর সালেহি. তিনি যোগ করে বলেন যে, তেহেরান যেকোনো ধরণের ব্যাপক নরহত্যার অস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধেই শুধু নয়, তার উত্পাদন এবং সঞ্চয়েরও বিরুদ্ধে. ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাছাড়া রাষ্ট্রসঙ্ঘকে আহ্বান জানান সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রের অনুমিত ব্যবহারের ঘটনার ক্ষেত্রে তদন্ত করার. তাঁর মতে, সবকিছু বিচার করে মনে হচ্ছে যে, সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করছে বিদ্রোহীর, সরকারী সৈনিকরা নয়. গত সপ্তাহে পেন্টাগনের প্রধান চাক হেগেল জানান যে, মার্কিনী গোয়েন্দা বিভাগ অনুমান করছে যে, সিরিয়ার বাহিনী সামান্য পরিমাণে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে, খুব সম্ভবত, জারিন গ্যাস. তবে, তার ঠিক পরেই হোয়াইট হাউজে উল্লেখ করা হয় যে, মার্কিনী গোয়েন্দা বিভাগ সিরিয়ায় সরকারী বাহিনীর দ্বারা রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার ঘটনা সম্পর্কে অসম্পূর্ণ তথ্য দিয়েছে.