চিনের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র হুয়া চুনিং বুধবারে ঘোষণা করেছেন যে সমস্ত রকমের প্ররোচনা স্ব্ত্ত্বেও পূর্ব্ব চিন সাগরে নিজেদের এলাকা সংক্রান্ত সার্বভৌমত্ব রক্ষার পরিকল্পনা থেকে চিন বিরত হবে না. তিনি যোগ করেছেন যে চিন সব সময়েই সেনকাকু দ্বীপপূঞ্জ সম্পর্কে একই অবস্থানে অনড় থেকেছে, আর এই দ্বীপ গুলিকে নিয়ে সমস্ত প্রশ্নের সমাধান হওয়া দরকার দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে. জানানো হয়েছিল যে, পূর্ব্ব চিন সাগরের এই বিতর্কিত দ্বীপপূঞ্জের কাছে মঙ্গলাবরে আটটি চিনা যুদ্ধজাহাজ দেখতে পাওয়া গিয়েছিল. এই প্রসঙ্গে দ্বীপপূঞ্জের দিকে জাপানের তরফ থেকে একসারি সীমান্ত রক্ষী নৌবাহিনীর জাহাজ পাঠানো হয়েছিল.

চিন ও জাপানের মধ্যে এই দ্বীপপূঞ্জ গুলি নিয়ে বহুদিন ধরেই বিরোধ রয়েছে. আর এই বিরোধ আরও বাড়ার কারণ হয়েছে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে এক ব্যক্তির কাছ থেকে জাপানের সরকার এই আর্খিপেলাগের তিনটি দ্বীপ কিনে নেওয়ার পরে.