ভুটানের দুই কক্ষের পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ, জাতীয় পরিষদের নির্বাচন হচ্ছে মঙ্গলবার ২৩শে এপ্রিল. দেশের ইতিহাসে এটি হবে দ্বিতীয় নির্বাচন, যেখানে ২০০৮ সালে দেশ পূর্ণ রাজতন্ত্র থেকে সাংবিধানিক রাজতন্ত্রে উত্তীর্ণ হয়েছে. দেশে ৩ লক্ষ ৮৭ হাজারেরও বেশি নির্বাচক রেজিস্ট্রিকৃত, আর তার মধ্যে ১ লক্ষ ৯৫ হাজার জন নারী. প্রার্থীদের নাম নথিভুক্ত করার কথা ছিল ৩১শে মার্চ পর্যন্ত, আর নির্বাচনী অভিযান চলেছিল ১লা থেকে ২১শে এপ্রিল পর্যন্ত. নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করার কথা ২৪শে এপ্রিল. নির্বাচনের প্রস্তুতিতে মুখ্য জটিলতা ছিল বহু দুর্গম পাহাড়ী এলাকায় পৌঁছোনো. এ কর্তব্য সহজ করার জন্য ভারত ভুটানে পাঠিয়েছে কয়েকটি হেলিকপ্টার. মঙ্গলবার দেশে ছুটির দিন ঘোষণা করা হয়েছে, আর নির্বাচনের সময় দেশের সীমানা বন্ধ রাখা হচ্ছে.