ভেনেজুয়েলায় বিরোধীপক্ষের লীডার এবং রাষ্ট্রপতি পদের প্রাক্তন প্রার্থী এনরিকে কাপ্রিলেস গত রবিবার অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটের পুনর্গণনার জন্য সরকারী আবেদন পেশ করেছেন. জাতীয় নির্বাচনী কমিশনের দ্বারা আগে ঘোষিত তথ্য অনুযায়ী, নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন চাভেসের রাজনৈতিক উত্তরাধিকারী উপ-রাষ্ট্রপতি নিকোলাস মাদুরো, ৫০.৭৬ শতাংশ ভোট পেয়ে. আগে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সরকারীভাবে ভোটের পুনর্গণনায় অস্বীকৃতি দিয়েছে, উল্লেখ করেছে “ফ্রান্স প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. তবুও, কাপ্রিলেসের নির্বাচনী দপ্তরের প্রধান কার্লোস ওসারিস বুধবার ভোট পুনর্গণনার জন্য আরও একটি আবেদন পেশ করেছেন. তার সাথে বিরোধীপক্ষ ভোটদানের সময় তাঁদের দ্বারা লক্ষ্য করা নিয়ম লঙ্ঘনের সাক্ষ্য সহ দলিল পেশ করেছে. সেই সঙ্গে ওসারিস আবার জোর দিয়ে বলেছেন যে, বিরোধীপক্ষ দেশে রাজনৈতিক সঙ্কট শান্তিপূর্ণভাবে অতিক্রম করার আশা করছে. নির্বাচনী কমিশনের সভাপতি তিবিসাই লুসেনা আবেদন গ্রহণ করেন এবং বলেন যে, “প্রতিবাদের অধিকার এবং অন্য দৃষ্টিভঙ্গীর অধিকার শ্রদ্ধা করা উচিত্”. ভেনেজুয়েলায় নির্বাচনে নিকোলাস মাদুরো-র জয়লাভের খবর সরকারীভাবে ঘোষণার পরে গত সোমবার বিরোধীপক্ষের সমর্থকদের স্বতঃস্ফূর্ত প্রতিবাদ আন্দোলন হয়েছে, বিশৃঙ্খলায় মারা গিয়েছে আট জন এবং বহু লোক আহত হয়েছে. এখন বিরোধীপক্ষ শুরু করেছে তথাকথিত “ডেকচির প্রতিবাদ” – ল্যাটিন আমেরিকায় শান্তিপূর্ণভাবে অসন্তোষ প্রকাশের রূপ.