মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিব জন কেরি সোমবার টোকিও-তে বলেছেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার সাথে আলাপ-আলোচনা চালাতে প্রস্তুত পিয়ংইয়ংয়ের তরফ থেকে শান্তির দিকে “গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের” ক্ষেত্রে. কেরির কথায়, ওয়াশিংটন উত্তর কোরিয়ার অ-পারমাণবিকীকরণ নিয়ে আলাপ-আলোচনা চালাতে প্রস্তুত, তবে পিয়ংইয়ংকে আগে গৃহীত বাধ্যবাধকতা পালন করতে হবে. মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিব উল্লেখ করেন যে, দক্ষিণ কোরিয়া ও চীনে যে আলাপ-আলোচনা হয়েছে, তা উত্তর কোরিয়ার সমস্যা সম্পর্কে বিশ্ব জনসমাজের একমত প্রদর্শন করেছে. তাঁর কথায়, উত্তর কোরিয়ার “বিপজ্জনক পারমাণবিক ও রকেট কর্মসূচি” শুধু প্রতিবেশীদেরই নয়, উত্তর কোরিয়ার জনগণকেও বিপন্ন করছে. আগে কেরি বেজিংও সফর করেছেন, সেখানে চীনের নেতৃবৃন্দ বলেছেন যে, চীন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে মিলে পিয়ংইয়ংকে আহ্বান জানাবে পারমাণবিক কর্মসূচি ত্যাগ করতে. সোমবার উত্তর কোরিয়ার মাঝারী পাল্লার রকেটের সম্ভাব্য ক্ষেপণ আশা করা হচ্ছে. আন্তর্জাতিক জনসমাজের মতে উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইর সেনের জন্মদিন উপলক্ষে এ রকেট ক্ষেপণ করা হবে, উল্লেখ করেছে “এ.এফ.পি” সংবাদ এজেন্সি.