দুর্ঘটনাক্রান্ত স্কুলপড়ুয়াদের নিয়ে রাশিয়ার জরুরী পরিস্থিতিমন্ত্রকের বিমান ব্রাসেলস থেকে ভলগোগ্রাদের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে. বিমানে ২৯ জন আরোহী – ২৫টি শিশু ও ৪ জন প্রাপ্তবয়স্ক, বলে মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, উড়ান চলাকালীন প্রয়োজন হলে তাদের সাহায্য দেবে চিকিত্সক ও মনোস্তত্ত্ববিদেরা. এইমুহুর্তে ব্রাসেলসে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ৬ জন, তাদের মধ্যে ৩ জন কিশোর. তাদের রাশিয়ায় ফেরত পাঠানোর সময়সীমা নির্ধারণ করবেন চিকিত্সাকারী ডাক্তাররা. ব্রাসেলস বিমানবন্দরে জরুরী পরিস্থিতি মন্ত্রণালয়ের আরও একটি বিমান অপেক্ষা করছে, যাতে করে বাকি আহতদের দেশে ফেরত আনা হবে. গতকাল, ১৪ই এপ্রিল অ্যান্টওয়েরপেনের অনতিদূরে যে বাসে সফর করছিল ভলগোগ্রাদের ১২ থেকে ১৭-বছর বয়সী ৩১ জন স্কুলপড়ুয়া ও ৯ জন প্রাপ্তবয়স্ক, ঘন্টায় ১০০ কিলোমিটারেরও বেশি গতিতে হাইওয়ের পাশের রেলিং ভেঙে রাস্তা থেকে ছিটকে উল্টে গেছে. ফলশ্রুতিতে ৫ জন প্রাণ হারিয়েছে. হাসপাতালে ভর্তি করা আহতদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা সংকটজনক.