সের্গেই লাভরভ এই কথা বলেছেন আরটিভিআই টেলিভিশন চ্যানেল এক সাক্ষাত্কারে. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে কোন ধরনের ব্যবস্থা যা সামরিক ক্ষমতা দেখানো বন্ধের জন্য করা হয়, তাই ইতিবাচক পদক্ষেপ. কোরিয়ার পরিস্থিতি ঘিরে তিনি আবেগ ছড়াতে বারণ করেছেন, চেষ্টা করতে বলেছেন কূটনৈতিক উপায়ে ছয় পক্ষের আলোচনা শুরু করার ব্যবস্থা করতে. মার্চ মাসের শুরুতে উত্তর কোরিয়া দ৭িণ কোরিয়ার সঙ্গে আক্রমণ না করা সংক্রান্ত সব সমঝোতা ত্যাগ করেছে ও এপ্রিলেই সাবধান করে দিয়েছে যে, দেশে থাকা বিদেশী রাষ্ট্রদূতদের ১০ই এপ্রিলের পরে নিরাপত্তার গ্যারান্টি দিতে পারবে না.