উত্তর কোরিয়া চতুর্থ পারমাণবিক পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতির লক্ষণ প্রদর্শন করছে, সোমবার বলেছেন দক্ষিণ কোরিয়ার ঐক্য সংক্রান্ত মন্ত্রী রিউ কিল-জায়ে. পার্লামেন্টে প্রদত্ত বক্তৃতায় তিনি আরও মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন, এ কথা বলে যে, তা গোয়েন্দা বিভাগের কাজের সাথে যুক্ত. দক্ষিণ কোরিয়ার “চুনআন ইলবো” পত্রিকা সোমবার আরও লিখেছে যে, উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক চাঁদমারিতে পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি চলছে. গোয়েন্দা বিভাগের এক উত্স সাংবাদিকদের বলেন যে, তাঁরা পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে ঘটনা বিকাশের প্রতি লক্ষ্য রাখছেন. চাঁদমারিতে সক্রিয়তা সেই রকমই, যেমন ছিল ফেব্রুয়ারীতে পরিচালিত তৃতীয় পরীক্ষার আগে. রণলিপ্সু উত্তর কোরিয়াকে কেন্দ্র করে সঙ্কট বেড়ে ওঠে গত রবিবার. দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতির জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত উপদেষ্টা কিম জান সু বলেন যে, উত্তর কোরিয়া ব্যালিস্টিক রকেট ক্ষেপণ করতে পারে বুধবার ১০ই এপ্রিল. অনুমান করা হচ্ছে যে, এ ক্ষেপণ করা হবে কিম ইর সেনের জন্মদিন উপলক্ষে, যা পিয়ংইয়ং পালন করে ১৫ই এপ্রিল. চীনের সভাপতি সি জিনপিন গত ছুটির দিনে হাইনানে এক কারবারী সম্মেলনে কোরীয় উপদ্বীপের পরিস্থিতি সম্পর্কে বলেন যে, কোনো দেশেরই “স্বার্থপর উদ্দেশ্যে” এশিয়াকে বিশৃঙ্খলায় ডুবিয়ে দেওয়ার অধিকার নেই. সেই সঙ্গে তিনি উত্তর কোরিয়ার নাম প্রত্যক্ষভাবে উল্লেখ করেন নি. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, অঞ্চলের সমস্ত দেশের, ছোট-বড়, ধনী-দরিদ্র সব দেশের শান্তি বজায় রাখায় নিজের অবদান উপস্থিত করা উচিত্.