দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক কর্মচারীদের সূত্র ধরে ‘ইওনহাপ’ সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, যে উত্তর কোরিয়া তার পূর্ব উপকূলে দ্বিতীয় মাঝারিপাল্লার ব্যালেস্টিক রকেট মোতায়েন করেছে. সূত্রটির তথ্য অনুযায়ী, রকেটদুটি পরিবহনযোগ্য নিক্ষেপযন্ত্রে বসানো রয়েছে এবং তাদের এমন একটা জায়গায় লুকানো হয়েছে, যার উদ্দেশ্যর হদিশ পাওয়া যায়নি.

দক্ষিণ কোরিয়ার সূত্রদের কথায়, ‘মুসুদান’ মার্কা রকেটের লক্ষ্যভেদের পাল্লা ৩ হাজার কিলোমিটার ও তার বেশি. অনুমান করা হচ্ছে, যে ঐগুলি জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার গোটা ভূখন্ড এবং প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত আমেরিকার গুয়াম দ্বীপে যে কোনো লক্ষ্য ভেদ করতে সক্ষম হবে.

এর আগে পিয়ং-ইয়ং ঐ এলাকায় আমেরিকার সামরিক ঘাঁটিগুলির ওপর আঘাত হানার হুমকি দিয়েছিল. অন্যদিকে গত বুধবার পেন্টাগন ঘোষনা করেছে, যে গুয়াম দ্বীপে রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার দিক থেকে আঘাতের আশংকায়.

মার্কিনী বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, যে আঘাত হানা হতে পারে ১৫ই থেকে ২৫শে এপ্রিলের মধ্যে কোনো একদিন, উত্তর কোরিয়া রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা কিম ইর সেনের ১০১-তম জন্মবার্ষিকীর প্রতি উত্সর্গ করে.