জাতিসংঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন উত্তর কোরিয়ার প্রতি পারমানবিক হুমকি ও যুদ্ধোন্মাদ কথাবার্তা থেকে বিরত হওয়ার আহ্বাণ জানিয়েছেন এবং জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ঘোষনাপত্র মেনে চলার পরামর্শ দিয়েছেন. বান কি মুন কোরিয় উপদ্বীপে উত্তেজনার চরম বৃদ্ধিতে উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেছেন. এর প্রধান কারণ হচ্ছে উত্তর কোরিয়ার তরফ থেকে যুদ্ধোন্মাদ কথাবার্তা. “আমি মনে করি, যে স্বার্থসংশ্লিষ্ট সমস্ত পক্ষ, এমনকি কোরিয় উপদ্বীপকে পারমানবিক শক্তিবিহীন করার ব্যাপারে অংশগ্রহণকারী ছয়দেশ উত্তেজনার প্রশমন ঘটানোর ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করতে পারে” – বলেছেন তিনি. এর প্রাক্কালে উত্তর কোরিয়া হোয়াইট হাউসকে এই বলে হুঁশিয়ার করেছে, যে আমেরিকার উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধবাদী রাজনীতিকে বানচাল করার জন্য সে দেশ পারমানবিক অস্ত্র প্রয়োগ করতে পারে. এই হুমকি হচ্ছে ঐ এলাকায় চলতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার বড়মাপের সম্মিলিত সামরিক মহড়ার উত্তর.