রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের “শীতল যুদ্ধের” সময়ের সামরিক-রাজনৈতিক ডক্ট্রিন ত্যাগ করে বাস্তব স্ট্র্যাটেজিক শরিকানা গড়ে তোলা শুরু করা উচিত্. ওয়াশিংটনে বিশিষ্ট মার্কিনী, ইউরোপীয় ও রাশিয়ার বিশেষজ্ঞদের একটি দলের দ্বারা প্রস্তুত করা রিপোর্টে মস্কো ও ব্রাসেলসের প্রতি এমন আহ্বান জানানো হয়েছে. এ দলিল নিয়ে কাজের নেতৃত্ব করেছেন প্রাক্তন মার্কিনী সিনেটার-ডেমোক্রাট স্যাম নান, গ্রেট-বৃটেনের প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ডেসমন্ড ব্রাউন, রাশিয়ার প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইগর ইভানোভ এবং জার্মানির প্রাক্তন উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্ফগাঙ্গ ইশেনজার. তাঁদের মতে, অতীতের উত্তরাধিকার ইউরো-অ্যাটলান্টিক অঞ্চলে উত্তেজনা ও অনাস্থা বৃদ্ধি করছে এবং জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে ঝুঁকি বাড়াচ্ছে. তা অতিক্রমের জন্য রিপোর্টের রচয়িতারা পরামর্শ দিচ্ছেন, বিশেষ করে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার স্ট্র্যাটেজিক পারমাণবিক অস্ত্রসজ্জা-কে অতিরিক্ত যুদ্ধ-প্রস্তুতির অবস্থা থেকে সরিয়ে আনতে. বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, রাশিয়া ও ন্যাটো জোটের রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সহযোগিতা গড়ে তোলা প্রয়োজন, যাতে যথাযথ তথ্য বিনিময় এবং যৌথ মহড়া পরিচালনা অনুমিত.