চীনের তিব্বত স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলে ধ্বসের জায়গায় একনাগাড়ে চতুর্থ দিন উদ্ধার-কাজ চলছে. পাহাড়ী অঞ্চলে এ ধ্বসের ফলে ৮৩ জন মাটির তলায় চাপা পড়ে. সোমবার স্থানীয় প্রচার মাধ্যম জানিয়েছে যে, এখনও পর্যন্ত ২১ জনের দেহ উপরে তোলা সম্ভব হয়েছে. তিব্বতের প্রশাসনিক কেন্দ্র লাসা থেকে প্রায় ৬৮ কিলোমিটার দূরে সোনার খনির কর্মীদের বসতির উপর দিয়ে গত শুক্রবার কর্দম প্রবাহ বয়ে গিয়েছিল. ধ্বসের জায়গায় পাঠানো হয়েছে ভারী প্রযুক্তি পাঠানো হয়েছে ধ্বংস-স্তূপ সরানোর জন্য. ৬২ জন এখনও নিখোঁজ. প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বেঁচে থাকা লোকেদের খুঁজে পাওয়ার সম্ভাবনা খুব কমই রয়েছে. অনুসন্ধানের কাজকর্ম জটিল হয়ে উঠছে নিচু তাপমাত্রা, তুষার-পাত এবং উঁচু পাহাড়ী এলাকায় উদ্ধারকর্মীদের অক্সিজেনের অভাবের জন্য. উদ্ধারকর্মীদের অনেকেরই চিকিত্সা সাহায্যের প্রয়োজন পড়ছে. এ কাজ চালানো হচ্ছে সমুদ্র-পৃষ্ঠ থেকে ৪৬০০ মিটার উচ্চতায়.