রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন সর্বরুশ গণ ফ্রন্টের প্রথম সম্মেলনে রাশিয়ায় বর্তমানে গড়ে ওঠা আয়ের ভিত্তিতে সামাজিক স্তর-ভেদের মানকে সীমাহীন বলে অভিহিত করেছেন. একই সঙ্গে, তাঁর কথায়, অনুরূপ সমস্যা পৃথিবীর অন্যান্য দেশের জন্যও বৈশিষ্ট্যমূলক, যেখানে স্তর-ভেদ এ দেশের চেয়ে দশ গুণ বেশি, জানিয়েছে ইন্টারফাক্স সংবাদ এজেন্সি. পুতিনের কথায়, রাশিয়ায় আয়ের ভিত্তিতে স্তর-ভেদের সূচক ১৫ থেকে ১৬. সামাজিক ন্যায়ের বিষয়টি সম্মেলনে মুখ্য আলোচ্য বিষয়. একমতাবলম্বীদের সাথে সাক্ষাতে রাষ্ট্রপতি বড় বড় কোম্পানির টপ-ম্যানেজারদের সোনার প্যারাস্যুট (বোনাস) সম্পর্কে মত প্রকাশ করেন. রাষ্ট্রপতির কথায়, পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো রাশিয়াতেও এমন নিয়ম প্রবর্তন করা উচিত, যা এ ধরণের পুরস্কার যুক্তিসঙ্গতভাবে সীমিত করবে. তাছাড়া, রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি পুতিন দেশের বাজেটের অর্থ ফলপ্রসূভাবে ব্যবহারে সৃজনশীল দৃষ্টিভঙ্গী প্রকটের পক্ষে মত প্রকাশ করেন. তাঁর স্থিরবিশ্বাস যে, প্রাকনির্বাচনী কর্মসূচিতে তাঁর দ্বারা নিরূপিত সামাজিক স্থিতিশীলতার সমস্ত পরিকল্পনা বুদ্ধিসঙ্গত, এবং তিনি বাজেটের উপর অতি মাত্রার চাপ সম্বন্ধে বিরোধীদের যুক্তি প্রত্যাখান করেন. এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন যে, জীবন সর্বদা নিরূপিত পরিকল্পনায় সংশোধন আনে, তবে তার অর্থ এ নয় যে, মূলনীতিগত স্থিতি থেকে “কোথাও সরে যেতে হবে”.