উত্তর কোরিয়ার কর্তৃপক্ষ সেওলের সাথে যোগাযোগের শেষ লাইনটিও বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, জানিয়েছে কোরিয়ার কেন্দ্রীয় টেলিগ্রাফ এজেন্সি. এজেন্সি ব্যাখ্যা করে বলেছে যে, “এমন পরিস্থিতিতে, যখন যুদ্ধ শুরু হতে পারে যেকোনো মুহূর্তে, উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মাঝে সামরিক যোগাযোগ বজায় রাখার কোনো প্রয়োজন নেই, যা দু দেশের সামরিক বিভাগের মাঝে বিদ্যমান ছিল”. এজেন্সি আরও উল্লেখ করেছে যে, উত্তর কোরিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মাঝেও সংলাপের কোনো পথও এখন নেই. আগে পিয়ংইয়ং দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে যোগাযোগের লাইন বন্ধ করে দিয়েছিল, যা নির্ধারিত ছিল রেড ক্রসের জন্য. এর আগে সেওলের সাথে সামরিক ক্ষেত্রে যোগাযোগের লাইনও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল, যে যোগাযোগ লাইনের মারফত পিয়ংইয়ং জানাতো দক্ষিণ নাগরিকদের সংখ্যা, যারা কেসোনে যৌথ শিল্প অঞ্চলে কাজ করতে আসত.