মঙ্গলবার ব্রিক্সের শীর্ষবৈঠকের আঙিনায় রাশিয়ার অর্থমন্ত্রী আন্তন সিলুয়ানভ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, যে রাশিয়া উক্ত তহবিলের জন্য ১৮০০ কোটি ডলার অঙ্কের মজুত অর্থ সরিয়ে রাখতে তৈরী. তিনি বিষদে জানিয়েছেন, যে শীর্ষবৈঠকে বীমাব্যবস্থা সৃষ্টি করার বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে, যাতে সোয়াপ বা প্রয়োজনে মুদ্রা বিনিময় করা সহজ হয়. কথা হচ্ছে ১০ হাজার কোটি ডলার নিয়ে. যদি ব্রিক্সের সদস্য কোনো দেশ আয় ও ব্যয়ের মধ্যে ভারসাম্য হারায়, তাহলে ঐ তহবিল থেকে সাহায্য পাওয়া যেতে পারবে.

অর্থমন্ত্রী উল্লেখ করেছেন, যে বাজেটের অর্থ এই খাতে নেওয়া হবে না. প্রত্যেক সদস্য দেশের সেন্ট্র্যাল(রিজার্ভ)ব্যাঙ্কগুলি তাদের মজুত স্বর্ণমুদ্রা ভান্ডারের একাংশ সরিয়ে রাখবে, ভবিষ্যতে প্রয়োজন পড়লে উক্ত তহবিলের মাধ্যমে সমস্যাক্রান্ত দেশকে সাহায্য যোগানোর জন্য.

সিলুয়ানভ আরও জানিয়েছেন, যে ঐ তহবিলের পুঁজির ভাগ হবে এরকমঃ চীন – ৪১০০ কোটি, ভারত, রাশিয়া ও ব্রাজিল – ১৮০০ কোটি করে ও দক্ষিণ আফ্রিকা – ৫০০ কোটি ডলার.

প্রশ্নটি এখনো নীচুস্তরে রযেছে. এই বিষয়ে আলোচনা ক্রমানুবর্তিত হবে এপ্রিলে ওয়াশিংটনে অনুষ্ঠিতব্য জি-২০র অর্থমন্ত্রীদের শীর্ষবৈঠকের সময়.