বেজিং সফররত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম এবং আর্থিক গোয়েন্দাবৃত্তি সংক্রান্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উপ-অর্থমন্ত্রী ডেভিড কোয়েন বলেছেন যে, বেজিংয়ের দ্বারা উত্তর কোরিয়ার উপর আর্থিক চাপ বাড়ানোর সম্ভাবনা সম্বন্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আশাবাদী মনোভাব পোষণ করছে. তিনি উল্লেখ করেন: “আমরা চীনা কর্তৃপক্ষকে আহ্বান করেছি চীনের ব্যাঙ্ক ক্ষেত্রকে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ২০৯৪ নম্বর সিদ্ধান্তে উত্তর কোরিয়াকে আর্থিক সুনিশ্চিতি দান নিবারণ সংক্রান্ত অংশ সম্বন্ধে জানাতে, যদি এ সুনিশ্চিতি নির্দেশিত হয় পারমাণবিক কর্মসূচি বিকাশের জন্য, ব্যালিস্টিক রকেট কর্মসূচির জন্য অথবা সাধারণ অস্ত্রসজ্জা কেনা-বেচার জন্য”. ডেভিড কোয়েন বলেন, “আমরা আশা করি যে, চীনের ব্যাঙ্কগুলি এবং চীনের কর্তৃপক্ষ রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত পালন করবে, আমি এ সম্বন্ধে নিশ্চিত”.