রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন শুক্রবার ক্রেমলিনে চীনের সভাপতি সি জিনপিনের সাথে আলাপ-আলোচনা করবেন, যিনি মস্কোয় রাষ্ট্রীয় সফরে আসছেন. সি জিনপিনের রাশিয়া সফর – চীনের নতুন রাষ্ট্রনেতার প্রথম বিদেশ সফর. আলাপ-আলোচনার সময় রাষ্ট্রনেতারা দ্বিপাক্ষিক পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপের মুখ্য সব প্রশ্ন আলোচনা করবেন : বাণিজ্য ও জ্বালানী, বিনিয়োগ ও শিল্প সমবায়, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা. পুতিন এবং সি জিনপিন তাছাড়া আলোচনা করবেন আন্তর্জাতিক সমস্যাবলি : সিরিয়ায় এবং নিকট প্রাচ্যের পরিস্থিতি, কোরিয়া উপদ্বীপে এবং গোটা উত্তর-পূর্ব এশিয়ার পরিস্থিতি. এ শীর্ষ সাক্ষাতে তাছাড়া কথা হবে রাষ্ট্রসঙ্ঘ এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক বিন্যাসের কাঠামোতে – সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা, জি-২০, এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা, ব্রিকস গোষ্ঠীর কাঠামোতে রাশিয়া ও চীনের ক্রিয়াকলাপের সমন্বয় আরও গভীর করা নিয়ে. কয়েক দিন পরে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রে ব্রিকস গোষ্ঠীর শীর্ষ সম্মেলনে পুতিন এবং সি জিনপিনের আবার সাক্ষাত্ হবে. আলাপ-আলোচনার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রায় ২০টি দ্বিপাক্ষিক দলিল স্বাক্ষরিত হবে. আলাপ-আলোচনার পরে পুতিন এবং সি জিনপিন রাশিয়ায় চীনে পর্যটন বার্ষিকীর উদ্বোধনী সমারোহে অংশগ্রহণ করবেন.