রাশিয়ার জ্বালানী শক্তি মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি মিনিস্টার ইউরি সেন্তুরিন এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই খবর দিয়েছেন. যদি আন্তর্প্রশাসনিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, তবে তখনই খনিজ তেল রপ্তানীর সারণী বৃদ্ধি করা হবে বলে সেন্তুরিন উল্লেখ করেছেন. তিনি নির্দিষ্ট করে বলেছেন যে, রসনেফ্ত কোম্পানী ইতিমধ্যেই মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে চিনে খনিজ তেল রপ্তানী বৃদ্ধির সম্ভাবনা নিয়ে প্রশ্নের সমাধানের আবেদন করেছে. সেন্তুরিন বলেন নি যে, ঠিক কোন পথ ব্যবহার করে রপ্তানী বাড়ানো হবে. শেষ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, খুব সম্ভবতঃ, রাশিয়া ও চিনের মধ্যে শীর্ষ সম্মেলনের সময়ে, যা হতে চলেছে এই সপ্তাহের শেষেই.

চিনের নতুন নেতা শী জিনপিন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে সরকারি সফরে রাশিয়া আসছেন ২২ থেকে ২৪শে মার্চ. জানানো হয়েছে যে, রাশিয়া ও চিন রাশিয়া থেকে বাড়তি খনিজ তেল রপ্তানীর সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করছে.