“প্রয়োজনীয়তা ভিত্তিক সহকর্মী হওয়া থেকে ইউরোপীয় সঙ্ঘ ও রাশিয়ার উচিত্ হবে স্বাধীন নির্বাচনের ভিত্তিতে সহকর্মী হওয়া”. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন ইউরোপীয় সঙ্ঘের শীর্ষ সম্মেলনের শেষে ইউরোপীয় পরিষদের প্রধান জোসে ম্যানুয়েল বারোজু. “রাশিয়া – এটা আমাদের সবচেয়ে বড় প্রতিবেশী দেশ, তৃতীয় বাণিজ্য সহযোগী, আর ইউরোপীয় সঙ্ঘই রাশিয়া থেকে সবচেয়ে বেশী আমদানী ও রপ্তানী করে থাকে, তারাই প্রধান বিদেশী বিনিয়োগের উত্স ও জ্বালানী শক্তির প্রধান ক্রেতা”, - উল্লেখ করেছেন বারোজু. তিনি শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীদের ইচ্ছা সম্বন্ধে উল্লেখ করে বলেছেন যে, “সবচেয়ে বেশী প্রসারিত ভাবে সহযোগিতা চালিয়ে যেতে হবে, যা করা উচিত্ হবে খোলাখুলি ও সরাসরি আলোচনার পরিসরে, তা যেমন করা দরকার সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন সম্ভাবনা বের করার জন্য, তেমনই দুই পক্ষের মধ্যে থাকা দ্বিমত নিয়েও”.