শুক্রবারে এই বিষয়ে নিউ ইয়র্ক শহরে ১৯শে মার্চ নিরাপত্তা পরিষদের প্রকাশ্য বৈঠক উপলক্ষে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে ঘোষণা করা হয়েছে. রাশিয়া এই সভায় সভাপতিত্ব করবে. আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চল থেকে সীমান্তবর্তী মধ্য এশিয়ার দেশ গুলিতে সন্ত্রাসবাদী সক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়া চলছে, যা রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগজনক, - এই বয়ান দেওয়া হয়েছে পররাষ্ট্র দপ্তরের বিবৃতিতে. ২০১৪ সালে আফগানিস্তানে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হবে, ন্যাটো জোটের সেনা বাহিনী ফিরো যাবে ও সেই দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে দেশের নিয়ন্ত্রণ তুলে দেওয়া হবে. আমরা তাই আশা করব এই সমস্ত সমস্যা গুলির একই সঙ্গে আলোচনা হওয়ার, যা আজ আফগানিস্তানের সামনে দাঁড়িয়ে আছে. তাদের সমাধানের জন্য শুধু আফগানিস্তানের লোকদের শক্তি প্রয়োগ করাই যথেষ্ট নয়, বরং সমস্ত বিশ্ব সমাজের একজোট হওয়ারও প্রয়োজন রয়েছে বলে পররাষ্ট্র দপ্তরের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে.