তেহরান ভবিষ্যতে একেবারেই খনিজ তেল সরবরাহ করা বন্ধ করার কথা ভেবে দেখছে, এই কথা বুধবারে দেশের প্রথম উপ রাষ্ট্রপতি মোহামেদ রেজা রাহিমি জানিয়েছেন.

ইরানের খনিজ তেল রপ্তানী বন্ধ হলে দেশের ক্ষতি হবে না, কিন্তু একই সময়ে তা প্রতিবেশীদের জন্য খুবই গুরুতর সমস্যার সৃষ্টি করবে বলে তিনি মনে করেন. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, ইরান দেশের উন্নতির জন্য খনিজ তেল ছাড়া অন্য উত্স বের করতে সক্ষম হবে.

এর আগে ইরানের খনিজ তেল মন্ত্রণালয় ইউরোপীয় সঙ্ঘের ২৭টি দেশে এই দেশ থেকে খনিজ তেল ও গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছিল, কারণ তারা ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা নিয়েছে. এই নিষেধাজ্ঞার আগে পর্যন্ত ইউরোপীয় সঙ্ঘের মোট আমদানীর শতকরা ১৮ ভাগ ছিল ইরানের থেকে রপ্তানী হওয়া খনিজ তেল.